তাইওয়ানে ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনায় মৃত বেড়ে ৫৪

১৫

৫০০ যাত্রী নিয়ে তাইওয়ানে স্মরণকালের সবচেয়ে ভয়াবহ রেল দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৫৪ জন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত আরও ১০০ জন। আহতদের উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট। শুক্রবার (২ এপ্রিল) একটি টানেলে ট্রেন লাইনচ্যুত হলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

শুক্রবার সকালটি তাইওয়ানের জন্য এক অভিশাপের। দেশটির ইতিহাসে তিন যুগের মধ্যে সবচে বড় রেল দুর্ঘটনা এটি।

পূর্বাঞ্চলের উপকূলীয় অঞ্চল হুয়ালিনের সুরঙ্গে ট্রেন লাইনচ্যুতের পরপরই শুরু হয় উদ্ধারকাজ। ট্রেনটির বেশ কয়েকটি বগি দুর্ঘটনায় সম্পূর্ণ দুমড়ে-মুচড়ে গেছে। এতে কমপক্ষে সাড়ে তিনশ যাত্রী ছিলেন

ট্রেনটিতে থাকা এক যাত্রী বলেন, ‘আমাদের বের হওয়ার কোনো উপায় ছিল না। তাই হতাহতের ঘটনা বেড়েছে অনেক।’

তাইওয়ানের প্রেসিডেন্ট জানান, তারা সব রকম প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। পরিবহন মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আহতদের হাসপাতালে দ্রুতই ভর্তি করা গেছে। তবে অনেকের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় বাড়তে পারে মৃতের সংখ্যা।

এ ঘটনায় ইতোমধ্যে তদন্ত শুরু হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে ঠিকমতো পার্কিং না করা একটি ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা লাগে ট্রেনটির। বগি টানেলের সঙ্গে বাড়ি খায়। ট্রাকটি সম্ভবত পিছলে রেললাইনের ওপর চলে আসে। দমকল বাহিনীর ছবিতে লাইনচ্যুত ট্রেনের ঠিক পাশেই একটি ক্ষতিগ্রস্ত ট্রাক দেখা গেছে।

২০১৮ সালে দেশটিতে একটি ট্রেন দুর্ঘটনা ঘটে। এতে মৃত্যু হয় ১৮ জনের। ১৯৯০ সালে দুটি ট্রেনের সংঘর্ষের ঘটনায় মারা যান ৩০ জন। সে হিসেবে এটিই তাইওয়ানের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় রেল দুর্ঘটনা।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.