পুরুষদের জন্য রুপচর্চা

বিখ্যাত চর্ম বিশেষজ্ঞ ডা: অজয় রানা কিছু স্কিনকেয়ার টিপস দিয়েছেন যা পুরুষদের অবশ্যই অনুসরণ করা উচিত। দিনে দুবার মুখ পরিষ্কার ধূলাবালি, মৃত কোষ এবং অতিরিক্ত তেল ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা তৈরি করে। দিনে দুবার মুখ পরিষ্কার করলে আপনার ত্বককে সতেজ এবং প্রাণবন্ত দেখাবে। এমনকি ত্বকের মৃত কোষ দূর করতে সহায়তা করবে।

এক্সফোলিয়েটিং :

পুরুষদের সপ্তাহে দুই থেকে তিনবার এক্সফোলিয়েট করা উচিত। এটি ত্বককে মসৃণ এবং পরিষ্কার দেখায়। এবং ত্বকের মৃত কোষগুলি সরিয়ে দেয়। তবে শক্ত স্ক্রাব বা ব্রাশ দিয়ে অতিরিক্ত এক্সফোলিয়েট করবেন না। কারণ প্রতিদিন এক্সফোলিয়েট করলে চুলকানি এবং জ্বালা হতে পারে।

সূর্যের সংস্পর্শ থেকে সুরক্ষিত থাকা অতিরিক্ত সূর্যের সংস্পর্শে থাকলে ত্বকের ক্যান্সার, ব্রণ, ব্লাকহেডসের মত সমস্যা দেখা দেয়। তাই রোদে বেরোনোর আগে এসপিএফ ব্রড স্পেকট্রামের সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন।

পুরুষদের ত্বকের যত্নের রুটিন অনুসরণ করা উচিত পুরুষদের ত্বকের যত্নের রুটিন অনুসরণ করা উচিত।

ত্বকের যত্নের রুটিন
পুরুষদের ত্বকের যত্নের রুটিন অনুসরণ করা উচিত। যাতে ত্বক সবসময় পরিষ্কার, স্বাস্থ্যকর ও তারুণ্যেময় থাকবে। প্রতিদিনের রুটিনে ভিটামিন সি বা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট পণ্য যেমন সিরাম, ব্রড-স্পেকট্রামের সানস্ক্রিন, মৃদু ক্লিনজার, রেটিনল এবং আই ক্রিম ব্যবহার করুন।

ময়েশ্চারাইজিং
কখনও কখনও অতিরিক্ত মুখ ধোয়া ও শেভের কারণে ত্বক শুকিয়ে যেতে পারে। তাই স্বাস্থ্যকর এবং ভাল ত্বক বজায় রাখতে হারিয়ে যাওয়া আর্দ্রতা পূরণ করা জরুরি।

ত্বক স্ক্রাব করা
স্ক্র্যাব স্কিনকেয়ার রুটিনের একটি অপরিহার্য অংশ। এটি ত্বকের ছিদ্রগুলোকে খোলা রাখতে সহায়তা করে। এবং ত্বক থেকে ময়লা এবং দূষণ দূর করে। এছাড়াও এটি ব্লাকহেডস এবং হোয়াইটহেডগুলো দূর করে।

সুষম খাদ্যাভাস
প্রচুর ফল ও শাকসব্জী সহ সুষম খাদ্য গ্রহণ করুন। কম গ্লাইসেমিক খাবারগুলো জটিল শর্করা তৈরি করে। রক্তে শর্করার মাত্রা বাড়লে শরীর ইনসুলিন নিঃসরণে মাত্রা কমিয়ে ফেলে। শরীরে উচ্চ মাত্রার ইনসুলিন নিঃসরণ তেল গ্রন্থিগুলো থেকে আরও তেল ছাড়তে পারে যা ব্রণ হওয়ার ঝুঁকি বাড়ায়।

বেশি পানি পান ত্বকে আর্দ্রতা ধরে রাখে যা ত্বকের স্থিতিস্থাপকতা বাড়ায়। এটি ত্বকের গ্লো ধরে রাখে। এবং শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থগুলি বের করতে সহায়তা করে।

তথ্যসূত্র: এনডিটিভি

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.