শিবগঞ্জে বসতবাড়ি ভাংচুরের সময় গর্ভবতীকে মারধর, থানায় অভিযোগ

শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধি

২৭

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার পল্লিতে জমাজমি সংক্রান্ত বিরোধে বসতবাড়িতে অর্তকৃত হামলা চালিয়ে বাড়ি ভাংচুরের সময় হামলার শিকার হন গর্ভবতী এক নারী। এবিষয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে শিবগঞ্জের কিচক ইউনিয়নের গড়িয়ারপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।গ্রামবাসী জানায়, বসতবাড়ির সীমানা টিনদিয়ে ঘেড়ার সময় প্রতিবেশী আপন জেঠা মতিন(৫২) ও তার সহযোগী কর্তৃক ভাতিজা খায়রুল ও তার গর্ভবতী স্ত্রী রনি খাতুকে পিটিয়ে আহত করা হয়। এসময় বসতবাড়ি উচ্ছেদের উদ্দেশ্যে আসবাপত্র ভাংচুর এবং বাড়ির বেড়া তুলে ফেলা হয়। এই ঘটনায় আহত হয়ে ভাতিজা ও তার স্ত্রী রনি আহত হয়ে শিবগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পূর্ব শত্রুতা এবং জমাজমি সংক্রান্ত জেরে এ হামলা ও ভাংচুর করা হয়। হামলা ৫০হাজার টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

বাদী আজাদুল ইসলাম বলেন, বিনা কারণে হিংসার বসবর্তি হয়ে আমার ভাই ও তার পরিবারের লোকজন আমার ছেলে ও তার গর্ভবতী স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত করেছে।

বিবাদী মতিন বলেন, নালিশী জায়গা আমার বাবা আমাকে লিখে দিয়েছে। তারা অহেতুক আমাদের জায়গায় ঝামেলা করছে।

এ ব্যাপারে ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.