টঙ্গীতে বাবা ছেলেকে রশিতে বেঁধে মধ্যযোগীয় কায়দায় নির্যাতন

মো: বশির আলম, টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি

টঙ্গীর বিসিক সালামের আটার কল এলাকায় গতকাল রবিবার রাতে বাবা-ছেলেকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে ৪৭নং ওয়ার্ডের কথিত যুবলীগ নেতা খলিল গাজীর বিরুদ্ধে। ঘটনার পর গুরুতর আহত সাখাওয়াত হোসেন খান (৪৫) ও তার ছেলে পলাশ খানকে (২০) উদ্ধার করে টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় টঙ্গী পূর্ব থানায় খলিল গাজী, আশিকুর রহমান তারেক, কামরুল, সিরাজ মনিরের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

আহত সাখাওয়াত হোসেন জানান, ‘ঘটনার দিন রাত আনুমানিক ১০টার দিকে তার ছেলে পলাশসহ সালামের আটারকল এলাকায় গেলে যুবলীগ নেতা খলিল গাজীর নেতৃত্বে আশিকুর রহমান তারেক, কামরুল, সিরাজ মনিরসহ বেশ কয়েকজন দূর্বৃত্ত তাদের পথরোধ করে পিটিয়ে ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করে।

জীবন বাঁচাতে পলাশ দৌঁড়ে পাশের এক বাড়িতে গেলে সেখানে আটকে ইট ও লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে তার হাত-পা থেতলে দেওয়া হয়।

পরে বাবা-ছেলেকে একসাথে বেঁধে বেধরক পেটানো হয়।’ ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে টঙ্গী হাসপতালে নেন। এ বিষয়ে অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা খলির গাজীর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি চা চক্রের আপ্যায়নের সময় চেয়ে প্রতিবেদককে ম্যানেজ করার চেষ্টা।

এ ব্যাপারে থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘থানায় অভিযোগ হয়েছে, বিষয়টি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.