সভাপতির ছেলেকে পেটালেন মাদ্রাসা সুপার, থানায় অভিযোগ

শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধি

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার ময়দানহাট্টা ইউনিয়নের চান্দার বাকসন এমএসএম দাখিল মাদ্রাসার সভাপতির ছেলেকে তুচ্ছ ঘটনায় পেটালেন মাদ্রাসা সুপারের লোকজন।

২৮ এপ্রিল বুধবার সকাল ১১টায় ময়দানহাট্টা ইউনিয়নের চান্দার বাকসন এমএসএম দাখিল মাদ্রাসা সংলগ্ন ঈদগাহ মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

প্রতিকার পেতে ঐ দিনেই শিবগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে মাদ্রাসা সভাপতি হাবিবুর রহমান।

যাদের নামে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে তার হলেন- সুপার আমিন উল্লাহ্ (৫৫), শিবগঞ্জ উপজেলার পাতাইর গ্রামের শাহিন (৩৮), গাংনই গ্রামের জাকিরুল ইসলাম (৩২), বড়াইল বাকসন গ্রামের মাছুম (৩২), বুলবুল (২২), সোহরাব (৩২), মেহেরাজ (৩৫) ও বাবু মিয়া (২৭)।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, মাদ্রাসা সুপার ঐ দিন মাদ্রাসার সামনে কিছু লোকজনসহ আসে এবং নিজেরাই ধাক্কাধাক্কি করে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ধাক্কাধাক্কির ঐ দৃশ্য মাদ্রাসা সুপারের ছেলে আবু জোবায়ের মোবাইলে ধারণ করতে গেলে তাকে মাদ্রাসা সুপারের লোকজন পেটায় এবং দুই লক্ষাধিক টাকা ছিনিয়ে নেয়।

এসময় ৯৯৯ এ ফোন করলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

মাদ্রাসা সভাপতির ছেলে বলেন, বিনা করণে নাটক সাজানোর জন্য সুপার এমন ঘৃণিত কাজ করেছে।

মাদ্রাসা সুপার আমিন উল্লাহ্ বলেন, আমাকে বিনা দোষে দোষী করা হচ্ছে। তারাই আমাকে লাঞ্ছিত করেছে। আমি থানায় প্রতিকার পেতে অভিযোগ দিয়েছি।

মাদ্রাসা সভাপতি হাবিবুর রহমান বলেন, তাকে স্বপদে বহাল করাই আমার ভুল হয়েছে। সে আমার সাথে এবং মাদ্রাসার সাথে বেইমানি করেছে।

শিবগঞ্জ থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, উভয় পক্ষের অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.