বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন নিউজিল্যান্ড টেস্টে ,ভারতকে হারিয়ে

ডেঙ্ক নিউজঃ ছবি সংগৃহীত

৪০

দুই দিন বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ার পরও কিউইরা লিখল দারুণ জয়ের কাব্য। রস টেইলর আর কেন উইলিয়ামসনের দৃঢ়তায় টেস্ট চ্যাম্পিয়নের ট্রফি এখন নিউজিল্যাণ্ডের।

সাউথ্যাম্পটনে বুধবার টেস্টের শেষ দিনে কিউই পেসারদের দুর্দান্ত বোলিংয়ে ভারতের দ্বিতীয় ইনিংসে গুটিয়ে যায় ১৭০ রানে। নিউজিল্যান্ডের লক্ষ্য দাঁড়ায় ১৩৮।

রান তাড়ায় দুই ওপেনারের দ্রুত বিদায়ে আভাস জাগে নাটকীয়তার। তবে এবার দলকে আর হৃদয়ভাঙা হারের স্বাক্ষী হতে দেননি কেন উইলিয়ামসন ও রস টেইলর। দলের সেরা দুই ব্যাটসম্যানের দারুণ জুটিতেই ধরা দেয় জয়।

দ্বিতীয় ইনিংসে কিউই পেসারদের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি বিরাট কোহলিরা। যার ফলে মাত্র ১৭০ রানেই অলআউট হয়ে যায় ভারত। নিউজিল্যান্ডের সামনে জয়ের জন্য লক্ষ্য দাঁড়ায় মাত্র ১৩৯ রানের। হাতে পেয়েছিল তারা ৫৩ ওভার।

শেষ ইনিংসের রান তাড়ায়ও অগ্রণী উইলিয়ামসন। ৮৯ বল খেলে ৫২ রানে অপরাজিত থাকেন কেন উইলিয়ামসন। তার সঙ্গে ১০০ বল খেলে ৪৭ রান করে অপরাজিত থাকেন রস টেইলর। ভারতের হয়ে ২টি উইকেটেই নেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

প্রথম ইনিংসে ২১৭ রান করেছিল ভারত। আজিঙ্কা রাহানে করেন সর্বোচ্চ ৪৯ রান। বিরাট কোহলি ৪৪, রোহিত শর্মা ৩৪ এবং ২৮ রান করেন শুভমান গিল। কাইল জেমিসন একাই নিয়েছিলেন ৫ উইকেট। ট্রেন্ট বোল্ট এবং নেইল ওয়াগনার নেন ২টি করে উইকেট। ১টি নেন টিম সাউদি।

ব্যাট করতে নেমে অবশ্য নিউজিল্যান্ডও খুব বেশি দূর যেতে পারেনি। তারা অলআউট হয়ে যায় ২৪৯ রানে। ৫৪ রান করেন ডেভন কনওয়ে।

কেন উইলিয়ামসন করেন ৪৯ রান। আর টম ল্যাথাম ৩০ এবং টিম সাউদিও করেন ৩০ রান। তাতে প্রথম ইনিংসে ৩২ রানের লিড পায় কিউইরা। এই লিডই তাদেরকে জয়ের পথে এগিয়ে নেয়।

৩২ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে ভারত। পঞ্চম দিন শেষে ভারতের সংগ্রহ ছিল ২ উইকেটে ৬৪ রান। এর মধ্যে রোহিত শর্মার ব্যাট থেকে আসে ৩০ রান। ৬ষ্ঠ দিন ব্যাট করতে নামে চেতেশ্বর পুজারা এবং বিরাট কোহলি।

কিন্তু দিনের শুরুতেই তারা উইকেট বিসর্জন দিয়ে আসেন। কোহলি করেন ১৩ রান এবং পুজারা আউট হন ১৫ রানে।

রিশাভ পান্ত কিছুটা প্রতিরোধের চেষ্টা করেন। ৮৮ বল খেলে ৪১ রান করেন তিনি। রবিন্দ্র জাদেজা করেন ১৬ রান। রবিচন্দ্রন অশ্বিন করেন ৭ রান এবং মোহাম্মদ শামি করেন ১৩ রান। ইশান্ত শর্মা ১ রানে অপরাজিত থাকেন।

অভিজ্ঞ টিম সাউদি নিয়েছেন ৪ উইকেট। ট্রেন্ট বোল্ট নেন ৩ উইকেট। আগের ইনিংসে ৫ উইকেট নেয়া কাইল জেমিসন নিয়েছেন ২ উইকেট। বাকি উইকেটটি নিয়েছেন নেইল ওয়েগনার।

ম্যাচের বাকি তখন ৫৩ ওভার, নিউজিল্যান্ডের লক্ষ্য ১৩৯ রান। এই সুযোগ তারা হাতছাড়া করেনি। উপলক্ষ্য রাঙিয়ে তোলে তারা নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে স্মরণীয় সাফল্যে। প্রথমবারের মত বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ভারতকে ৮ উইকেটে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হলো নিউজিল্যান্ড।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.