টঙ্গীর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে এক কিশোরের মৃত্যু

মো: বশির আলম, টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি:

১৩৫

টঙ্গীর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে (বালক) মারামারির সময় ঘুষিতে শিহাব মিয়া (১৬) নামের এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। সে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর উপজেলার ভাদুঘর ভুইঁয়া পাড়া এলাকার ফারুক মিয়ার ছেলে।

শনিবার (১০ জুলাই) রাতে মাগরিবের নামাজের পর টঙ্গীর চেরাগ আলীতে অবস্থিত সমাজসেবা কর্তৃক পরিচালিত শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, শিহাব চলতি বছর ৫ই মে থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার একটি চুরির মামলায় শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের নিচ তলার সেফ হোমে ছিল।

শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের কম্পাউন্ডার মো. হেলাল উদ্দিন জানান, শনিবার (১১ জুলাই) মাগরিবের নামাজের পর নিচতলায় মারামারির ঘটনা শুনে ভেতরের নিবাসীরা দৌড়ে ঘটনাস্থলে যায়।

সেখানে সিহাব নামে এক নিবাসী অজ্ঞান হয়ে পড়ে ছিল। পরে তাকে উদ্ধার করে দ্রুত টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাবেদ মাসুদ বলেন, শনিবার রাতে দুই নিবাসীর মধ্যে মারামারির সময় সিহাবকে বুকে ঘুষি দিলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।

পরে তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে।

এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মো. রফিকুজ্জামান জানান, হাসপাতালে রাত সাড়ে ৮টার দিকে ওই কিশোরকে মৃত অবস্থায় আনা হয়েছিল।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.