চটখিলে নবম শ্রেণির ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি, যুবক গ্রেফতার

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

১৯

নোয়াখালীল চাটখিল উপজেলার কালিকাপুর গ্রামে ৯ শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১৫) শ্লীলতাহানির অভিযোগে মোঃ লিটন প্রকাশ চান মিয়া (৩৫) নামের এক বখাটে যুবককে গ্রেফতার করছে চাটখিল থানা পুলিশ।

গ্রেফতাকৃত মোঃ লিটন প্রকাশ চান মিয়া উপজেলার রামনারায়নপুর ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামের দেওয়ান বাড়ির আবু ছিদ্দিকের ছেলে। রোববার (১৮ জুলাই) সকালে তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে নোয়াখালীর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়।

এর আগে, গতকাল শনিবার রাত ১২টার দিকে চাটখিল খিলপাড়া তদন্ত কেন্দ্রের একদল পুলিশ উপজেলার কালিকাপুর গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করে। গত শুক্রবার (১৬ জুলাই) রাত ১১টার দিকে উপজেলার রামনারায়নপুর ইউনিয়নের কালিকাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

থানা পুলিশ ও ভুক্তভোগীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী এতিস স্কুল ছাত্রী নানার বাড়িতে থেকে লেখা পড়া করতো। তাকে বিভিন্ন সময় একই বাড়ির তিন সন্তানের জনক চান মিয়া কু-প্রস্তাব দিয়ে উক্তত্য করত।

এতে সে রাজি না হওয়ায় গত শুক্রবার রাত ১১টার দিকে বাথরুমে যাওয়ার জন্য ঘরের বাহিরে গেলে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা চান মিয়া তাকে জাপটে ধরে শ্লীলতাহানি করে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এসময় মেয়েটির চিৎকারে বাড়ির লোকজন ছুটে এলে চান মিয়া পালিয়ে যায়।

পরে মেয়েটি বিষয়টি সবাইকে অবহিত করে। এ ঘটনায় শনিবার রাত ৮টার দিকে ভিকটিমের নানী বাদী হয়ে নারীও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। তাৎক্ষণিক পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত যুবককে আটক করে।

চাটখিল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় ভিকটিমের নানী বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে চাটখিল থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

পুলিশ এ মামলার প্রধান আসামি চান মিয়াকে গ্রেফতার করে। রোববার সকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে নোয়াখালী জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.