সুনামগঞ্জে কিশোরী ও গৃহবধু ধর্ষন,গ্রেফতার ২

সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:

৭৬

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া- সুনামগঞ্জে এক কিশোরী ও এক গৃহবধু ধর্ষনের শিকার হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। পৃথক ২টি ধর্ষনের ঘটনায় ২জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত ধর্ষকরা হলো- জেলার তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের লামশ্রম গ্রামের মৃত রিয়াজ উদ্দিনের ছেলে মঞ্জুরুল হক (৪৮) ও ছাতক উপজেলার চরেরবন্দ গ্রামের মৃত রাখাল মিয়ার ছেলে উপজেলার জাবেদ আহমদ (২৫)।

আজ মঙ্গলবার (১০ আগষ্ট) দুপুর ১২টায় আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে কারাঘারে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে- গতকাল সোমবার (৯ আগষ্ট) রাত ১১টায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষক মঞ্জুরুল হককে তার নিজ গ্রাম জেলার তাহিরপুর উপজেলার লামশ্রম থেকে গ্রেফতার করে।

এরআগে গত রবিবার (৮ আগষ্ট) ভোরে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে লামাশ্রম গ্রামের এক গৃহবধু বাড়ির বাহিরে যাওয়ার পর লম্পট মঞ্জুরুল হক তার মুখ চেপে ধরে তুলে নিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষন করে। পরে এঘটনাটি থানায় জানালে পুলিশ

ঘটনাস্থল থেকে ধর্ষিতা গৃহবধুকে উদ্ধার করে। এঘটনার প্রেক্ষিতে ধর্ষিতা গৃহবধুর স্বামী বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

অপরদিকে ছাতক পৌরশহরের মন্ডলীভোগ এলাকার ১৯ বছরের এক কিশোরীকে প্রেমের সম্পর্কের সূত্র ধরে বিয়ে করার আশ্রস দিয়ে ধর্ষন করে পাশর্^বর্তী চরেরবন্দ এলাকার লম্পট প্রেমিক জাবেদ আহমদ।

এঘটনার প্রেক্ষিতে পুলিশ প্রেমিক জাবেদকে তার নিজ এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। এব্যাপারে ধর্ষিতা কিশোরী বাদী হয়ে তার প্রেমিকের বিরুদ্ধে থানায় মামলা নং-৭ দায়ের করেছেন।

তাহিরপুর থানার ওসি আব্দুল লতিফ তরফদার ও ছাতক থানার ওসি শেখ নাজিম উদ্দিন এঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.