সুনামগঞ্জে উন্নত যোগাযোগের জন্য হাওরে একাধিক উড়াল সেতু নির্মাণ করবে সরকার-এলজিআরডি মন্ত্রী

সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:

১৭

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া-স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম বলেছেন, সুনামগঞ্জ হল হাওর বেষ্টিত জেলা। বর্ষাকাল আসলেই চারদিক পানিতে ডুবে যায়।

তাই এখানকার উন্নত যোগাযোগের জন্য একাধিক উড়াল সেতু নির্মাণ করবে সরকার। তার মধ্যে একটি উড়াল সেতু প্রকল্প পাস হয়েছে। আজ শনিবার (১১ সেপ্টেম্ভর) দুপুরে জেলার নবগঠিত মর্ধনগর উপজেলায় প্রশাসনের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হাওরের মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে জোর দিয়েছেন। তিনি হাওরা লের মানুষের প্রতি খুবই আন্তরিক। বর্তমানে হাওরে অনেক প্রকল্প চলমান আছে।

এছাড়া চরা ল এলাকায় যৌক্তিকভাবে প্রকল্প নেওয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সব বাস্তাবায়ন করা হবে। তিনি আরো বলেন, অবহেলিত হাওরবাসীকে এগিয়ে নিতে গ্রামকে শহর করতে আমরা প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে কাজ করে যাচ্ছি।

হাওরের কোন এলাকা আর অবহেলিত থাকবে না। প্রধানমন্ত্রী দেশের উন্নয়ন ছাড়া আর কিছুই বোঝেন না। তাই খুব দ্রুত উড়াল সেতুর কাজ শুরু হবে।

অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান বলেন, স্বাধীনতার পরাজিত শক্তি এখনও দেশে রয়েগেছে।তাড়া আড়াল থেকে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চায়। দেশের উন্নয়ন হোক তারা চায় না।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের এমন কোনো জায়গা নেই উন্নয়ন হচ্ছেনা। যে দিকেই তাকাবেন দেখবেন উন্নয়ন আর উন্নয়ন। মধ্যনগর থানাকে উপজেলায় রুপান্তিত করা হয়েছে। এজন্য উপজেলার মানুষ অত্যন্ত আনন্দিত।

আমরা সব দূর্ভোগ দুর করে সবার দুঃখ কষ্ট লাগব করে বাংলাদেশকে একটি উন্নয়নশীল দরিদ্র মুক্ত দেশ গড়ে তুলব।
সভায় আরো বক্তব্য রাখেন- স্থানীয় সরকার সচিব হেলাল উদ্দিন, সুনামগঞ্জ ১আসনের এমপি মোয়াজ্জেম হোসেন

রতন, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল হুদা মুকুট, জেলা প্রশাসক মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, পৌরমেয়র নাদের বখত, তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল প্রমুখ।

 

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.