ঝিনাইগাতীর সোনারপাড়া গ্রামের মোখলেছুর রহমান গং অবৈধ ভাবে জমি দখলের পায়তারা।

শেরপুর প্রতিনিধি:

৯০

মোহাম্মদ দুদু মল্লিক, শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতী উপজেলার হাতীবান্দা ইউনিয়নের ঘাগড়া সোনারপাড়া গ্রামের বিধবা মহিলা লাকী বেগমের ৭ শতাংশ জমি জোরপূর্বক দখলের পায়তারা করছে মোখলেছুর রহমান গংরা।

জানা যায়, ঘাগড়া লস্কর মৌজার ৭ শতাংশ জমি ক্রয় ও পৈত্রিক সূত্রে বিধবা মহিলা লাকী বেগম দীর্ঘদিন যাবত ভোগদখল করিয়া আসিতেছি।

গত ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ইং তারিখে ওই জমি জোরপূর্বক দখল নেওয়ার জন্য ওই গ্রামের মমিজ উদ্দিনের পুত্র মোখলেছুর রহমান,

মোহাম্মদ আলী ও সুরুজ আলী একদল সন্ডা বন্ডা নিয়ে জমিতে গেলে বিধবা মহিলা লাকী বেগম বাধা দেয়। এ কারণে লাকী বেগমকে মারধর ও টানা হেছড়া করে মোখলেছুর রহমান গং এর লোকেরা।

বর্তমানে লাকী বেগম ঝিনাইগাতী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। লাকী বেগম জানান, প্রায় ২০ বছর আগে তার স্বামী মারা যায়। তিনি নিয়মিত ওই জমি ভোগদখল করিয়া আসিতেছে। যাহার কাগজ পত্র আছে।

কিন্তু হঠাৎ মোখলেছুর রহমান গংরা জমি দখল না করতে পেরে ঘটনার দিন তাকে মারধর করে। এছাড়াও লাকী বেগমকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

এ ব্যাপারে লাকী বেগম ঝিনাইগাতী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। ঝিনাইগাতী থানার এসআই শফিকুল ইসলাম জানান, এরকম একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.