বাংলাদেশে রাজাকারের বংশরা রয়েগেছে,তাদেরকে ধ্বংস করে দিতে হবে পরিকল্পনামন্ত্রী

সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি:

৩৪

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া, রাজাকারের বংশরা বাংলাদেশে রয়েগেছে। তারা দেশের উন্নয়ন কাজে বাঁধাগ্রস্ত করবে। এই শান্তি প্রিয় দেশে অশান্তি সৃষ্টির চেষ্টা করছে। এজন্য তাদেরকে খোঁজে বের করে ধ্বংস করে দিতে হবে।

আজ রবিবার (৩ অক্টোবর) বিকেলে সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি প্রয়াত আছব উদ্দিনের স্মরণে অনুষ্ঠিত শোক সভায় পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন- বর্তমানে এদেশের ১৮ কোটি মানুষের ঘরে বিদ্যুতের আলো জলছে। পদ্মা সেতু নির্মাণ হচ্ছে। গ্রামগঞ্জে রাস্তাঘাট, সেতু নির্মাণ করা হয়েছে। চারদিকে উন্নয়নের জোয়ার বইছে।

যা দেখে রাজাকারের বংশরা সইতে পারছেনা। তাই ওদের থেকে সবাইকে সর্তক থাকতে হবে। দিরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সমীরণ দাসের সভাপতিত্বে সম্মরণ সভায় আরো বক্তব্য রাখেন- সুনামগঞ্জ জেলা

আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল হুদা মুকুট, সহ-সভাপতি রেজাউল করিম শামীম, সৈয়দ আবুল কাসেম, তাহিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল,

দিরাই উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রঞ্জন রায়, উপজেলা চেয়ারম্যান মঞ্জুর আলম চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান মোহন চৌধুরী, সাবেক পৌরমেয়র মোশারফ মিয়া প্রমুখ।

এরআগে সকাল ১১টায় জেলার শান্তিগঞ্জ উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে অসহায় দুস্থদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ও হিন্দুধর্মালম্বীদের ২২টি পুজা মন্ডপে সরকারী অনুদানের চেক বিতরণ করেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান।

ওই সময় মন্ত্রীর সাথে উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আনোয়ার উজ জামান, ভাইস চেয়ারম্যান প্রভাষক নুর হোসেন, ওসি কাজী মোক্তাদির হোসেন, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শাহাদাত হোসেন ভূঁইয়া, পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি জ্যোতি ভূষণ তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক সুরঞ্জিত চৌধুরী প্রমুখ।

 

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.