কামড়াবন্দ গ্রামে মাদকের বাণিজ্য জমজমাট মদসহ গ্রেফতার ৩

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

৫৬

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া, সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নে মাদকের গ্রাম হিসেবে সুপরিচিত কামড়াবন্দ। এই গ্রামের চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীরা দীঘদিন যাবত প্রশাসনের চোখে ধুলো দিয়ে মদ, গাঁজা,

ইয়াবা ও হেরুইনসহ নাসির উদ্দিন বিড়ি বিক্রি করছে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে চোলাই মদের বিশাল চালানসহ চিহ্নিত ৩জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে।

আজ রবিবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে কারাঘারে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ীরা হলো- জেলার বিশম্ভরপুর উপজেলার দক্ষিণ বাদাঘাট ইউনিয়নের মিয়ার চর গ্রামের মৃত জিন্নাত আলীর ছেলে রাজু মিয়া (৩৫),

তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের কুনাটছড়া গ্রামের কালা মিয়ার ছেলে কামাল উদ্দিন (৩২) ও একই ইউনিয়নের মাদকের গ্রাম কামড়াবন্দ পূর্বপাড়া এলাকার মৃত রবিলাল দাসের ছেলে রতন রবিদাস (৩৮)। পুলিশ ও

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে- ভারত সীমান্ত সংলগ্ন লাউড়গড়, চাঁনপুর, টেকেরঘাট, বালিয়াঘাট ও চারাগাঁও এলাকা দিয়ে নিষিদ্ধ ঘোষিত নাসিরউদ্দিন বিড়ি, মদ, গাঁজা,

ইয়াবাসহ বিভিন্ন প্রকার মালামাল চোরাকারবারীরা পাচাঁর করে মাদকের গ্রাম কামড়াবন্দে নিয়ে মজুত করে। পরে তাহিরপুর উপজেলাসহ বহিরাগত খুচড়া ও পাইকারী মাদক ব্যবসায়ীরা এই গ্রাম থেকে তাদের প্রয়োজন মতো মাদক ও বিড়ি সংগ্রহ করে থাকে।

গতকাল শনিবার (৯ অক্টোবর) রাত সোয়া ১টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাদাঘাট পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই জয়নাল আবেদীনের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে মাদকের গ্রাম কামড়াবন্দ থেকে ২হাজার ২শত ৬০লিটার চোলাই মদসহ চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী রাজু মিয়া,

কামাল উদ্দিন ও রতন রবিদাসকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এরআগে তাহিরপুর থানার ওসি আব্দুল লতিফ তরফদারের নেতৃত্বে একাধিক অভিযান চালিয়ে এই মাদকের গ্রাম কামড়াবন্দ থেকে ইয়াবা,

মদ ও বিড়িসহ অনেক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়। এছাড়াও ইয়াবাসহ হাবিব সারোয়ার আজাদ নামের এক ব্যক্তিকে গণধৌলাই দিয়ে থানায় সোপর্র্দ করেছিল এলাকাবাসী। পরে মুসলেখা দিয়ে সে রক্ষা পায়।

এতকিছুর তারপরও থেমে নেই মাদক ব্যবসায়ীরা। তাই মাদকের গ্রাম কামড়াবন্দে নজরধারী আরো বৃদ্ধি করে মাদক ব্যবসায়ীদের অত্যাচার থেকে যুব সমাজকে রক্ষা করার জন্য প্রশাসনের কাছে জোরদাবী জানিয়েছেন ভোক্ত ভোগী এলাকাবাসী।

এব্যাপারে সুনামগঞ্জ পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন- গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মাদক মুক্ত সমাজ উপহার দিতে আমাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

 

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.