ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদানকালে সোনালী ব্যাংক কর্মকর্তা’র মৃত্যু

কুড়িগ্রাম  প্রতিনিধিঃ

৫৯

কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বক্তব‌্য দেওয়ার সময় হঠাৎ মৃত‌্যুর কো‌লে ঢ‌লে পড়‌লেন সোনালী ব‌্যাংক কু‌ড়িগ্রাম ‌প্রিন্সিপাল অ‌ফি‌সের প্রধান কর্মকর্তা পলাশ চন্দ্র বর্মন (৩৭)।
শ‌নিবার (২২ জানুয়া‌রি) রাতে রাজারহাট উপ‌জেলার আদর্শ বিএল উচ্চ বিদ‌্যালয় প্রাঙ্গ‌নে আ‌য়ো‌জিত

সনাতন ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বক্তব‌্য দেওয়ার সময় তাঁর মৃত‌্যু হয়। সোনালী ব‌্যাংক প্রিন্সিপাল অ‌ফিস কু‌ড়িগ্রা‌মের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডি‌জিএম-ইন চার্জ) ওয়া‌হেদুন্নবী এ তথ‌্য নি‌শ্চিত ক‌রে‌ছেন।পলাশ চন্দ্র বর্মনের বা‌ড়ি লালম‌নিরহাট জেলার হাতিবান্ধা উপজেলার নওদাবাস এলাকায়। ‌তি‌নি সোনালী

ব‌্যাংক কু‌ড়িগ্রাম ‌প্রিন্সিপাল অ‌ফি‌সের প্রধান কর্মকর্তা হি‌সে‌বে কর্মরত ছি‌লেন। ব‌্যক্তিগত জীব‌নে তি‌নি বিবা‌হিত এবং তাঁর এক‌টি কন‌্যা সন্তান র‌য়ে‌ছে। বৈবা‌হিক সূ‌ত্রে তি‌নি কু‌ড়িগ্রা‌মের উ‌লিপু‌রে স্ত্রী সন্তান নি‌য়ে বসবাস কর‌তেন। সোনালী ব‌্যাংক কু‌ড়িগ্রা‌ম সূত্র জানায়, পলাশ চন্দ্র পেশায় সোনালী

ব‌্যাংক কর্মকর্তা হ‌লেও ধর্মীয় আ‌লোচনায় পারদর্শী হওয়ায় বি‌ভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠানে ডাক পেতেন তিনি। শ‌নিবার রাতে এক‌টি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বক্তব‌্য দেওয়ার সময় হঠাৎ হার্ট অ‌্যাটাক হ‌লে সভার আ‌য়োজকরা তাঁ‌কে দ্রুত কু‌ড়িগ্রাম জেনা‌রেল হাসপাতা‌লে নি‌য়ে যান। সেখা‌নে দা‌য়িত্বরত চি‌কিৎসক

পরীক্ষা ক‌রে জানান, হার্ট অ‌্যাটা‌কে (হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে) ঘটনাস্থলেই পালা‌শের মৃত‌্যু হ‌য়ে‌ছে।নিহত পলা‌শের চাচা‌তো ভাই মৃদুল রায় জানান, ‘পলা‌শ চ‌ন্দ্রের আ‌গে থে‌কে হার্টের সমস্যা ছিল না। কীভাবে কি হয়ে গেলো আমরা বুঝতে পারলাম না।’ শ‌নিবার রাতেই নিহতের মরদেহ কুড়িগ্রাম

থেকে নিজ বাড়ি লালমনিরহাটের নওদাবাসে নিয়ে যাওয়া হবে বলেও জানান তি‌নি।কুড়িগ্রাম সোনালী ব্যাংকের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডি‌জিএম-ইনচার্জ) ওয়া‌হেদুন্নবী ব‌লেন, ‘পলাশ একজন

নি‌বে‌দিত ব‌্যাংক কর্মকর্তা ছি‌লেন। তাঁর আক‌স্মিক ও অকাল মৃত‌্যু‌তে আমরা শোকাহত। আমরা একজন ভা‌লো সহকর্মীকে হারালাম। তাঁর বি‌দেহী আত্মার শা‌ন্তি কামনার পাশাপা‌শি আমরা সোনালী ব‌্যাংক প‌রিবার তার শোকসন্তপ্ত প‌রিবা‌রের প্রতি সম‌বেদনা জ্ঞাপন কর‌ছি।’

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.