বেগমগঞ্জে চোর সন্দেহে চার যুবককে হাত-পা বেঁ ধ মধ্যযুগীয় কায়দার নির্যাতনের অভিযোগ

নোয়াখালী প্রতিনিধি

১৫২

মোঃ জাহ্গাীর আলম  নোয়াখালীর সেনবাগের গ্রামের বাড়ি ৪ যুবককে ডেকে নিয়ে বেগমগঞ্জর উপজেলার জমিদারহাট বাজার সংলগ্ন বড় পুল এলাকায় আলিফ অটো রাইচ মিলে চুরি ঘটনায়

জড়িত সন্দেহে ইলেকট্রিক মেস্ত্রী চার যুবককে হাত-পা বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করে হাতের নক তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। শনিবার (২৯ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় নির্যাতনের শিকার চার

ওই ৪যুবককে পুলিশ আলিফ অটো রাইচ মিল থেকে উদ্ধার করে বেগমগঞ্জ উপজেলা ৩০শয্যা হাসপাতালে ভতি করান। পরে তাদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বেগমগঞ্জ একটি বেসরকারি

হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নির্যাতনের শিকার যুবকরা জানান, গত চার দিন আগে (২৬ জানুয়ারি) রাতে জমিদারহাট বাজার সংলগ্ন বডপোল আলিফ অটো রাইচ মিলের কিছু মালামাল চুরি

হয়। এ ঘটনায় কেন্দ্র করে মিলের মালিক শাহাদাতের নেতৃত্বে ওই চার যুবককে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে বেধে নিযার্তন করে এক পর্যয়ে হাতের প্ল্াস দিয়ে হাতের নক ফেলে স্বীকারোক্তি আদায়ে

ভিডিও ধারণ করে। দীর্ঘক্ষনেও ওই ৪যুবকরে খবর না পেয়ে খোজাখুজির এক পর্যয়ে স্বজনরা ওই স্থানে তাদরে আটকিয়ে রেখে নির্যাতন কবার খবর পেয়ে পুলিশ মাধ্যমে আলিফ অটো রাইচ মিল

থেকে রক্তাক্ত ও গুরুতর জখম অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে প্রথম বেগমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে চিকিৎসকের পরামর্শে উন্নত চিকিৎসার জন্য একটি বেরসরকারি হাসপাতালে

ভর্তি করা হয়। এ বর্বরোচিত নির্যাতন ঘটনার সুষ্ঠ বিচার দাবি করেন আহত যুবকদের স্বজনর্।াবেগমগঞ্জ মডেল থানার ওসি মীর জাহিদুল হক রনি জানান খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে

নির্যাতনের শিকার চার যুবককে উদ্ধার করে এনে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখছি।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.