এমপির বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:

৫৭

আল হেলাল চৌধুরী, দিনাজপুর-৫ (ফুলবাড়ী-পার্বতীপুর) আসনের সংসদ সদস্য সাবেক প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপিকে নিয়ে সংবাদ সম্মেলনের

প্রতিবাদে তিব্র নিন্দা জানিয়ে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে স্থানীয় বিভিন্ন হিন্দু-আদিবাসী সংগঠন।

গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় পৌরএলাকার সুজাপুরস্থ রামকৃষ্ণ সেবা আশ্রম থেকে বিভিন্ন সংগঠনের ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। পরে স্থানীয় নিমতলামোড়ে (দিনাজপুর-ঢাকা সড়কে) দুপুর ১২ টা থেকে ১ টা পর্যন্ত ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

এতে উপজেলা শাখা বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ, ফুলবাড়ী উপজেলা আদিবাসী উন্নয়ন সমিতি, পুখুরী ডাঙা পাড়া গ্রামবাসী, কুরমুট ভাসাপাড়া রাধা গোবিন্দ মন্দিরসহ বিভিন্ন হিন্দু ও আদিবাসী সংগঠন অংশ নেন।

মানববন্ধন চলাকালে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মঞ্জু রায় চৌধুরী, উপজেলা শাখা বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সদস্য সচিব ধীমান চন্দ্র

সাহা, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের আহবায়ক জয়রাম প্রসাদ, সদস্য সচিব মানিক সরকার, আদিবাসী উন্নয়ন সমিতির সভাপতি কমল কিস্কু, পূজা উদযাপন পরিষদের সদস্য অনিল চন্দ্র

সরকার, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক অমিতাভ সরকার, ছাত্রলীগ নেতা প্লাবন গুপ্ত প্রমুখ।

বক্তরা বলেন, দিনাজপুর-৫ (ফুলবাড়ী-পার্বতীপুর) আসনের সংসদ সদস্য সাবেক প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপি ও তার কনিষ্ঠ সহদর উপজেলা

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান বাবুলকে হেয়পতিপন্ন করতে একদল কুচক্রমহল দিনাজপুর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন।

তদন্তপূর্বক এই ষড়যন্ত্রকারীদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার দাবি জানান তারা। ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রিয়াজ উদ্দিন বলেন, সরকারি নিয়ম নিতির আলোকে এবং

অংশীমালিকানার অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে আব্দুস ছামাদকে লীজ প্রদান করা হয়েছে। এখানে লীজ প্রদানের ক্ষেত্রে কোনো প্রকার অনিয়ম করার সুযোগ নেই। যেই সংবাদ সম্মেলনটি করা হয়েছে তার সাথে আমাদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই।

দিনাজপুর-৫ (ফুলবাড়ী-পার্বতীপুর) আসনের সংসদ সদস্য সাবেক প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপি বলেন, লীজের দায়িত্বে সরকার নিয়োজিত

কর্মকর্তারা রয়েছেন। এখানে আমার সম্পৃক্ততার কোনো প্রশ্নই আসে না। এ বিষয়ে আমি কিছু জানি না।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.