ফুলবাড়ীতে মালিকানা সম্পত্তি নিয়ে মিথ্যা প্রচারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন।

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:

৪৯

আল হেলাল চৌধুরী, আইনগত বৈধ মালিকানা সম্পত্তিকে জনসাধারণের কবরস্থান মরমে অপপ্রচার এবং অযৌক্তিক মানববন্ধনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মো.আনোয়ারুল কাদির ও তার পরিবারের সদস্যরা। সোমবার সকাল ১১টায় ফুলবাড়ী প্রেসক্লাব

সভাকক্ষে এই সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি। এসময় উপস্থিত ছিলেন তার ছেলে এএসএম আসাদুজ্জামান,চাচাত ভাই কোরবান আলী ও ফুপাত ভাই মিজানুর রহমান। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে মো.আনোয়ারুল কাদির বলেন,জমিদার পূর্ণ চন্দ্র চৌধুরী, ওই সম্পত্তি ভোগ দখল

করা কালীন ১৯৪৮ সালে হুকুমনামা মূলে আমার পিতা আব্দুল জব্বারকে পত্তন দেন। পত্তন সূত্রে এস. এ. ২৩৩ নং খতিয়ানে আমার পিতা আব্দুল জব্বারের নামে রেকর্ড ভুক্ত হয়। আমার পিতা আব্দুল জব্বার ওই জমি ভোগদখল করাকালিন ১৯৯৫ সালে রেজিস্ট্রিকৃত ২৩৯ নং

হেবাবিলএওয়াজ দলিল মুলে আমি এবং আমার ভাই মোঃ কামরুল হাসান এর কাছে হস্তান্তর করেন। সেই সূত্রে আমি ওই সম্পত্তি গত ২০০৯ সালে আমার নামে নামজারী করে ভোগ দখল করে আসছি। জনৈক আলতাফ হোসেন সামাজিক বিশৃঙ্খলাকারী আদালত অবমাননাকারী

লোকজনদের সঙ্গে লইয়া গত ১ এপ্রিল শুক্রবার বাদ জুম্মা ফুলবাড়ি ঢাকা মোড় নামক স্থানে ওই সম্পত্তির স্বত্বের প্রকৃত মালিকানা বিষয়ের তথ্য গোপন করে, নিজ স্বার্থ হাসিল করার অসৎ উদ্দেশ্যে আমার এবং আমার ওয়ারিশগনকে সামাজিক ও মানুষিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন ও হয়রানি

করার জন্য অযৌক্তিক মানববন্ধন করেন। মহাসড়কের যান চলাচল বাধা সৃষ্টি করে জনমনে আতংক সৃষ্টি করে প্রকৃত ও সত্য গোপন করে মানুষের মনে আমার ও আমার ওয়ারিশগণের নামে

জবরদখলদার উল্লেখ করে সামাজিক বিশৃঙ্খলা ও জনমনে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করেন। তাই আমি এবং আমার পরিবারের লোকজন ওই কথিত মানববন্ধনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ
জানাই।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.