সোমবার, জুন ২৪, ২০২৪
spot_img
Homeজাতীয়কুড়িগ্রামে ইটভাটার বিষাক্ত ধোয়ায় ফসলসহ আম-কাঁঠালের ব্যাপক ক্ষতি

কুড়িগ্রামে ইটভাটার বিষাক্ত ধোয়ায় ফসলসহ আম-কাঁঠালের ব্যাপক ক্ষতি

কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার দলদলিয়া ইউনিয়নের কাজীপাড়া গ্রামের মেসার্স এমবিইউ ব্রিকস নামের একটি ইট ভাটার বিষাক্ত ধোয়ায় কৃষকদের শতাধিক বিঘা জমির ফসল, আম-

কাঁঠাল, জাম, লিচু, সুপারি, নারিকেলসহ শাকসবজির ব্যাপক ক্ষতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। ধোয়ার কারণে পচন ধরে ঝরে পড়ছে আম ও কাঁঠালসহ অনান্য ফল

। এ অবস্থায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষজন বিষয়টি দ্রুত সমাধানের দাবী জানিয়েছেন। ইটভাটাটি থেকে ইট পোড়ানোর বিষাক্ত গ্যাস ছেড়ে দেয়ায় পরিবেশের ওপর বিরূপ প্রভাব ফেলছে।

এতে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে ওই এলাকার শতাধিক বিঘা জমির ফসল, আম-কাঁঠাল, জাম, লিচু, সুপারি, নারিকেলসহ শাকসবজি। ইট ভাটার বিষাক্ত ধোয়ায় পঁচে যাওয়ায় ঝড়ে পড়ে নষ্ট হচ্ছে বাগানের আম ও কাঁঠাল।

ধানগাছ ধোঁয়ার কারণে লালচে হয়ে গেছে। পাতা কুঁকড়ে গেছে। ধানের শিষ চিটায় পরিণত হওয়ায় দিশেহারা হয়ে পরেছেন কৃষকরা। ঋণ নিয়ে ফসল ফলায় তা পরিশোধ নিয়ে চিন্তিত তারা।

এব্যাপারে নুর ইসলাম নামের এক ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক বলেন, আমার বাড়ির ১শ মিটারের মধ্যে মেসার্স এমবিইউ ব্রিকস নামের এই ইট ভাটার বিষাক্ত ধোয়ার কারণে প্রতি বছরেই আমার বিভিন্ন প্রকার ফসল নষ্ট হচ্ছে।

ভাটার মালিককে অনেক বার বলার পরেও তারা কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। এদিকে ক্ষতি শুধু ধানের হচ্ছে না, বাড়ির বিভিন্ন প্রকার গাছেই ফল ধরছে না। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আমার আকুল আবেদন তারা যেন আমাদের এই বিষাক্ত ধোঁয়া থেকে মুক্তির ব্যবস্থা করে দেয়।

নজরুল ইসলাম নামের আরও একজন বলেন, ভাটার চারিদিকে যত প্রকার ফসলি জমি আছে সবারেই ক্ষতি হচ্ছে।

আমরা এলাকার সবাই ভাটার মালিককে অনেক বার বলেছি তারা কোন ব্যবস্থা নেননি। এখানে প্রতিবিঘা জমিতে ধান হতো ১৫-১৬ মণ এখন হচ্ছে ৭-৮ মণ তাহলে এতো বড় ক্ষতি হলে আমরা কি ভাবে বাঁচব বলেন।

স্থানীয় বিউটি বেগম নামের এক নারী বলেন, এই ভাটার বিষাক্ত ধুঁয়ার কারণে ছোট ছোট বাচ্চারা কাশিসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। এখানকার অনেক শিশুর এ্যাজমা পর্যন্ত হয়েছে। আমার বাচ্চারও কাশি ভালো হচ্ছে না।

এবিষয়ে জানতে মেসার্স এমবিইউ ব্রিকস নামের ইটভাটার মালিক আব্দুল মালেককে মুঠোফোনে একাধিক বার কল দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এবিষয়ে উলিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বিপুল কুমার জানান, আমার কাছে তো কেউ কোন অভিযোগ করেননি। অভিযোগ করলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

spot_img
এই বিভাগের অনান্য সংবাদ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

spot_img

জনপ্রিয় সংবাদ