টঙ্গীর মাদক ব্যবসায়ী পরান মামুনের অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসি

মো: বশির আলম, টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি

২৯০

টঙ্গীতে মাদক, চাঁদাবাজ সন্ত্রাসী কার্যকলাপে একটি সংঘবদ্ধ চক্র এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করছে। শিল্পনগরী টঙ্গীর গাজীপুরা সাতাইশ এলাকায় এই চক্রটি দীর্ঘদিন যাবত মাদক ব্যবসাসহ এলাকায় চাঁদাবাজী ও ছিনতাই চক্রের সাথে জড়িত থেকে নেতৃত্ব দিয়ে আসছে। গত শনিবার সাতাইশ এলাকায় গিয়ে দেখা যায় ফুটপাতে ভ্যান গাড়ীতে দোকান বসিয়ে প্রতি দোকান থেকে ১৫০টাকা করে চাঁদা তুলেন চাঁদাবাজ চক্রের মূল হোতা মামুন, পরান ও কালা হাসেমের নেতৃত্বে সবুজ, টিটু, সালাহ উদ্দিন, ওয়াশিম, আজিজ, নজরুলগংরা।এদের চাঁদাবাজীতে ফুটপাত দখলমুুক্ত করার জন্য বার বার চেষ্টা করে ব্যর্থ হচ্ছে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন অঞ্চল-১।

এ বিষয়ে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর আমজাদ হোসেন জানান, আমাদের এই এলাকাটি শিল্প কারখানা থাকার কারণে ও জনবসতি বেশি হওয়ার কারণে সাতাইশ রোডে সবসময় ব্যাপক যানজট থাকে। আমি নির্বাচিত হওয়ার পর বেশ কিছুদিন ফুটপাত দখলমুক্ত রেখেছি। কিন্তু স্থানীয় কিছু চাঁদাবাজ চক্রের অসহযোগিতায় বার বার ফুটপাত বসিয়ে চাঁদাবাজী করছে। গত ৭ এপ্রিল সিটি কর্পোরেশন অঞ্চল-১ এর নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এস এম সোহরাব এর নেতৃত্বে ফুটপাত দখলমুক্ত অভিযান পরিচালনা করা হয়। পরের দিন আবারো দোকান বসালে সিটি কর্পোরেশনের অভিযান শাখার আনোয়ারের নেতৃত্বে মাইকিং ও উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়। গত শনিবার ফুটপাত দখলমুক্ত করার জন্য আমার এলাকার স্থানীয় লোকজন গেলে ফুটপাতে চাঁদাবাজী গ্রুপের লোকেরা দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে হুমকি ধমকি ও বাধা প্রদান করে।

অপরদিকে চাঁদাবাজী চক্রের হোতা মামুনের বিরুদ্ধে গত ৮ এপ্রিল অটোচালক মো: শাহিরুল ইসলামকে বেধরক রড ও চাপাতি দিয়ে কূপিয়ে আঘাত করে একটি মোবাইল ফোন ও নগদ ৫ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এই ঘটনায় মো: আব্দুল হালিম বাদী হইয়া টঙ্গী পশ্চিম থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। বিগত ৩ মাস পূর্বে এক ব্যবসায়ীকে আটক করে মুক্তিপন দাবী করে। মুক্তিপনের ঘটনায় টঙ্গী পশ্চিম থানায় মামুনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়। এই চক্রের মূল হোতা মামুন ও পরানের বিরুদ্ধে মাদক, চাঁদাবাজী, অপহরণসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

এ বিষয়ে টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ মো: শাহ আলম জানান, কলেজ রোড, চেরাগআলী, সাতাইশ, খাঁ পাড়া, ফুটপাতে ভাসমান কিছু গরিব মানুষ দোকান বসিয়ে জীবন ও জীবিকা নির্বাহ করে আমার কাছে চাঁদাবাজীর বিষয়টি জানা নাই। চাঁদাবাজীর বিষয়ে সংশ্লিষ্টতা পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.