সোনাইমুড়ীতে নিশু নামের এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

নোয়াখালী প্রতিনিধি

মোঃ জাহাঙ্গীর আলম,নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে সখিনা আক্তার নিশু(২৪)নামের এক গৃহবধুর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। তবে নিহতের পরিবারের দাবি মারধরের কারনে তার মৃত্যু ।

নিহত গৃহবধূ সখিনা আক্তার নিশু উপজেলার কালিকাপুর গ্রামের রহিম উদ্দিন বেপারী বাড়ির সোলেমানের স্ত্রী এবং বেগমগঞ্জের মিরওয়ারিশপুরের গ্রামের আব্বাস আলী হাজী বাড়ির জামাল

উদ্দিনের মেয়ে। বুধবার (১৮ মে) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করে।

এর আগে বুধবার ভোরে নিহতের শ্বশুর বাড়িতে তার মৃত্যু হয়। নিহতের শ্বশুরের পরিবার দাবী, ভোরে নিশুকে ঘুমে অচেতন অবস্থায় পাওয়া যায়। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে

কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। নিহত গৃহবধূর মামা গোপালপুর ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান শাহজাহান সাজু জানান, মঙ্গলবার রাতে পারিবারিক দাওয়াত নিয়ে আমার ভাগ্নির সাথে

তার স্বামীর কথা কাটাকাটি হয়েছে বলে ফোন করে রাতেই জানায় সে। এর পরদিন সকালে আমরা তাঁর মৃত্যুর খবর পাই আমরা। তার গলায় পোলা দাগ রয়েছে। এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড বলে

তিনি মন্তব্য করেন। সোনাইমুড়ী থানার অফিসার ইনেচার্জ (ওসি) হারুন অর রশীদ জানান, এ বিষয়ে একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী

জেনারেল হাসপাতালের প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট হাতে পেলে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.