কুড়িগ্রামে শ্রমিক সংকট কাটাতে হার্ভেস্টারে শষ্য কর্তন

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:

১৪

জাহীদ আল হাসান, কুড়িগ্রামে কৃষিতে শ্রমিক সংকট কাটাতে কম্বাইন হার্ভেস্টারের মাধ্যমে শষ্য কর্তন মাঠ দিবস পালিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে সদর উপজেলার বেলগাছা ইউনিয়নের বিসিক

শিল্পনগরী এলাকায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আমান উদ্দিন আহমেদ। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সদর ইউএনও মো. রাসেদুল

হাসান, সদর কৃষি অফিসার মো. জাকির হোসেন প্রমুখ। সদর উপজেলা কৃষি অফিসার মো. জাকির হোসেন জানান, সরকারি উদ্যোগে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় কৃষকদের একসাথে

বীজ বপন, সার প্রয়োগ ও পরিচর্চা এবং এক সাথে কর্তনে সমালয় ভিত্তিক কর্মসূচি গ্রহন করা হয়েছে। এতে কুড়িগ্রাম সদর ও নাগেশরী উপজেলায় ১৭১জন কৃষককে সম্পৃক্ত করা হয়।

এসময় স্থানীয় কৃষকদের চাহিদা মোতাবেক ১০০ একর জমিতে হাইব্রীডজাত ন্যাশনাল এগ্রোর জিনকরাজ বোরো ধানের বীজ সরবরাহ করা হয়। বীজ বপনে শ্রমিকদের বদলে রাইস ট্রান্স প্লান্টার

মেশিন ব্যবহার করা হয় এবং ধান কর্তনেও কম্বাইন হার্ভেস্টার মেশিনের সহযোগিতা নেয়া হয়। এতে খরচ সাশ্রয় হচ্ছে। যেখানে এক একর জমি কর্তনে শ্রমিকদের ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা

খরচ দিতে হয়। সেখানে কম্বাইন হার্ভেস্টারের মাধ্যমে মাত্র ৫ থেকে ৬ হাজার টাকা খরচ হয়। ফলে শ্রমিকের উচ্চ মূল্য ও শ্রমিক সংকট কাটাতে কৃষকদেরকে মেশিনের মাধ্যমে চারা রোপন ও

কর্তনে এই কর্মসূচি গ্রহন করা হয়েছে। যাতে অন্যান্য কৃষকরাও উদ্বুদ্ধ হয়। এ ব্যাপারে কুড়িগ্রাম কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপপরিচালক মো. আব্দুর রশীদ জানান, দুটি উপজেলায় কৃষি প্রণোদনার

মাধ্যমে সমালয় ভিত্তিক বোরো চাষাবাদ কর্মসূচি গ্রহন করা হয়েছে। এতে কৃষকরা একসাথে জমিতে চারা রোপন করবেন। একসাথে সার প্রয়োগ ও পরিচর্চা করবেন এবং একসাথে ধান কর্তন

করবেন। এই সমালয় ভিত্তিকে কাজ করা হলে কৃষকদের খরচ সাশ্রয় হবে এবং উৎপাদনও বৃদ্ধি পাবে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.