নোয়াখালীতে নববধূকে হত্যা, স্বামী আটক

নোয়াখালী প্রতিনিধি,

৫৬

নোয়াখালীর সুধারাম থানা পুলিশ সদর উপজেলায় কালাদরাপ ইউনিয়নের উত্তর শুল্লাকিয়া গ্রাম থেকে জেসমিন আক্তার (২৩) নববধূকে লাশ উদ্ধার করেছে। এঘটনায় জড়িত ঘাতক স্বামী নুর ইসলামকে (৪৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত নুর ইসলাম সদর উপজেলার আন্ডারচর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাজিরচর এলাকায় উত্তর শোলাকিয়া গ্রামের আশকত আলী বাড়ির সৈয়দ আহমদের ছেলে।

এবং নিহত জেসমিন আক্তার উপজেলার কালাদরাপ ইউনিয়নের উত্তর শুল্লাকিয়া গ্রামের মৃত মনোহর আলীর মেয়ে।৭দিন আগে জেসমিন ও নুর ইসলামের বিবাহ হয়।

মঙ্গলবার দিবাগত বুধবার রাত ২টার দিকে উপজেলার আন্ডারচর ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাজিরচর এলাকায় উত্তর শোলাকিয়া গ্রামের আশকত আলী বাড়িতে ওই হত্যাকান্ডের ঘটনাটি ঘটেছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে, মানসিকভাবে অসুস্থ্য নুরু ইসলামের অসুস্থ্যতার কথা গোপন রেখে গত ৭দিন পূর্বে পারিবারিক ভাবে জেসমিন আক্তারের সাথে তার বিয়ে হয়। এটি দুই জনেইর দ্বিতীয় বিয়ে ছিল।

মঙ্গলবার দিবাগত বুধবার রাত ২টার দিকে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। এতে উত্তোজিত হয়ে স্বামী নুর ইসলাম নববধূ জেসমিনকে কোদাল দিয়ে মাথায় আঘাত করলে মাথা চূর্ণ বচ্ছিন্ন হয়ে ঘটনাস্থলেই নববধূ জেসমিন মারা যায়।

খবর পেয়ে বুধবার ভোর রাতে সুধারাম থানা পুলিশ ঘাতক স্বামীকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে।
সুধারাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ সাহেদ উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, অভিযুক্ত স্বামীকে গ্রেফতার

করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নোয়াখালী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.