টঙ্গীতে এক ব্যবসায়ীকে অপহরণ, গ্রেফতার ৫

মো. বশির আলম টঙ্গী থেকে

৯৪

গাজীপুরের টঙ্গীতে এক ব্যবসায়ীকে অপহরণের অভিযোগে ৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ।
গতকাল রবিবার সকালে টঙ্গীর দত্তপাড়া এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। সেই সাথে অপহৃত ব্যক্তিকেও উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামিরা হলেন, গাজীপুরের মৃত আমজাদ আলীর ছেলে কামরুল হাসান (৪০), পিয়ার আলী ছেলে মাহফুজ আহমেদ (৪৫), মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বারীর ছেলে শরিফ রানা বাবু (৩৭), আব্দুল জলিলের ছেলে মেহেদি হাসান শাহিন (৩৫) ও কুড়িগ্রামের রৌমারির মৃত মতিউর রহমানের ছেলে আতাউর রহমান (৪০)।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী জানান, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে শনিবার সন্ধ্যায় টঙ্গী পূর্ব থানাধীন দত্তপাড়া হাসানলেন রোড টঙ্গী ক্রিস্টল স্কুল এন্ড কলেজের দোকানের সামনে থেকে ব্যবসায়ী হানিফ আলীকে পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক ১০-১৫ অপহরণকারী জোরপূর্বক অপহরণ করে পার্শ্ববর্তী ঈঁদগা মাঠে নিয়ে যায়।

অপহরণকারীরা অপহৃত ব্যবসায়ীকে দেশীয় অস্ত্র দা, লাঠি, সুইচ গিয়ার চাকু দিয়ে শারীরিক নির্যাতন চালিয়ে মুক্তিপণ হিসেবে জমি লিখে দিতে বলে, জমি লিখে না দিলে হত্যা করে তুরাগ নদীতে ভাসিয়ে দেওয়ারর হুমকি প্রদান করে।

পরে ভুক্তভোগীর স্ত্রী টঙ্গী পূর্ব থানা অপহরণের অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে ভিকটিমকে উদ্ধার করে টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য পাঠায়।

পরে পুলিম টঙ্গীর বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে অপহরণকারীদের গ্রেপ্তার করে গাজীপুর জেলা হাজতে প্রেরণ করে।

এ বিষয়ে টঙ্গী পূর্ব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাভেদ মাসুদ জানান, অপহরণের খবর পেয়ে পুলিশ তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করে ভিকটিমকে উদ্ধার করে। পরে বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে ৫জন অপহরণকারীকে গ্রেফতার করে।

প্রাথমিক জিঞ্জাসাবাদে তারা অপহরণের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে।
তিনি আরো জানান, বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের প্রক্রিয়া চলছে।

 

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.