নেত্রকোণায় কালিয়ারা গাবরাগাতী ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীকে মারধর

রুবি,নেত্রকোণাঃ

২৩০

নেত্রকোণা সদর উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর সর্মথক কর্মী মোঃ শাহজাহান কে মারধর করে নৌকা প্রার্থীর কর্মীরা ।

এলাকা সূত্রে জানা যায়, ৯ নভেম্বর রাত ৮ টার দিকে ১১ নং কালিয়ারা গাবরাগাতী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ঘোড়া প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ এ আর আলী আজগর খানের এক কর্মী শাহজাহান কে এলোপাতাড়ি কিল ঘুষি দেয়এবং

হাতে থাকা মোবাইল ফোন ভেঙে পেলে একিই এলাকার বাবুলের ছেলে মুরাদ ও বড় আবুর ছেলে খায়রুলসহ আর ও ৪-৫ জন। এ সময় তার কর্মী সমর্থক শাহজাহান বাজার থেকে বাড়িতে ফিরার সময় কালিয়ারা গাবরাগাতী ইউনিয়ন

৯নং ওর্য়াডে মসজিদের সামনে রাস্তায় নৌকার কর্মীরা মোটরসাইকেল যোগে এসে তাকে মারধর করা শুরু করে পরে এলাকার লোকজন এগিয়ে আসলে তারা পালিয়ে যায়। মুরাদ ও খায়রুল ছাড়া অন্যদের চিনতে পারিনি এলাকাবাসী।

পরে এলাকাবাসী আহত শাহজাহান কে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যায় এবং প্রাথমিক চিকিৎসা করে। এদিকে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এ আর আলী আজগর খান বলেন, কালিয়ারা গাবরাগাতী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল

ঘোষণার পর থেকেই আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রার্থী মোঃ আমজাদ হোসেন খান ও তার কর্মীরা বিভিন্ন ভাবে বাঁধা ও হুমকি দিয়ে আসছিলো। তার কর্মীসমর্থকরা আমার কর্মীসমর্থকদের হুমকিধামকি নানান আচারণ বিধি লংঘন সহ ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে আসছে।

এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার রাতে নৌকা প্রতীকের কর্মীসমর্থকরা বহিরাগত লোকজন নিয়ে ছয়- সাত জন দুটি মোটরসাইকেলে করে এসে তার উপর হামলা করে ।

তিনি আর ও বলেন উপজেলার সদর মডেল থানায় ফোন করে জানান এবং থানায় লিখিত অভিযোগ দিবে বলে ও জানান।

মডেল থানার ইনচার্জ অফিসার (ওসি) মোঃ শাকের আহমেদ কে ফোন দিলে তিনি বলেন, একজনকে মারধর করার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে ।তবে এখনো কোন লিখিত অভিযোগ পায়নি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.