সুনামগঞ্জে দর্জি ও ইউপি সদস্য গ্রেফতার

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

৩৯

মোজাম্মেল আলম ভূঁইয়া- সুনামগঞ্জে পৃথক অভিযান চালিয়ে এক দর্জি ও এক ইউপি সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলো- জেলার ছাতক উপজেলার উত্তর খুরমা ইউনিয়নের মোহনপুর গ্রামের দিরেন্দ্র কুমারের

ছেলে দর্জি ওমর দাস (৩৫) ও ধর্মপাশা উপজেলার দক্ষিণ সুখাইড়-রাজাপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৮নং ওয়ার্ড সদস্য ছাদেকুর রহমান ছাদেক (৫৪)। গতকাল মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) সন্ধ্যায় আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে কারাঘারে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে- মুজিব জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী উপহারের সরকারী ঘর দেওয়ার কথা বলে জেলার ধর্মপাশা উপজেলার দক্ষিণ সুখাইড়-রাজাপুর ইউনিয়নের আদর্শগ্রাম ও ভাটি তাহিরপুর গ্রামের

৯জনের কাছ থেকে ৮৪হাজার টাকা উৎকোচ নেয় ওই ইউনিয়ন পরিষদের ৮নং ওয়ার্ড সদস্য ছাদেকুর রহমান ছাদেক। পরে এঘটনাটি জানাজানি হলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য ইউপি সদস্যকে নির্দেশ দিয়ে সময় দেন। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের মধ্যে টাকা ফেরত দেয়নি ইউপি সদস্য।

এঘটনার প্রেক্ষিতে গত সোমবার (৮ নভেম্বর) রাতে ধর্মপাশা উপজেলা নির্বাহী কমকর্তার কার্যালয়ের কর্মরত উচ্চমান সহকারী আনন্দ মোহন তালুকদার

দী হয়ে ইউপি সদস্য ছাদেকুর রহমান ছাদেকের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় গতকাল মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) সন্ধ্যায় তাকে গ্রেফতার করে ধর্মপাশা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের মাধ্যমের কারাঘারে পাঠায় পুলিশ।

অপরদিকে ছাতক উপজেলার কালারুকা ইউনিনের হাসনাবাদ বাজারে অবস্থিত একটি দর্জির দোকানে অভিযান চালিয়ে ৯ বোতল ভারতীয় মদসহ দর্জি ওমর দাসকে গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশ।

সে পেশায় একজন দর্জি হলেও মাদকসহ নানা অপরাধ মূলক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে বলে ডিবি পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। এঘটনার প্রেক্ষিতে তার বিরুদ্ধে থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ধর্মপাশা থানার ওসি খালেদ চৌধুরী ও ছাতক থানার ওসি মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের পৃথক ঘটনায় ২জনকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

 

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.